আওয়ামী লীগে বিতর্কিত কর্মীর প্রয়োজন নেই: কাদের

অনলাইন ডেস্ক : আওয়ামী লীগে বিতর্কিত কর্মীর প্রয়োজন নেই মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ শনিবার সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশনে বক্তৃতাকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কিছু কিছু জায়গায় মাঝে মাঝে বিশৃঙ্খলা হয়, বিশৃঙ্খলামুক্ত করতে হবে। অপকর্মকারীদের আওয়ামী লীগে প্রবেশ নিষিদ্ধ করে দিতে হবে। আমাদের হাজার হাজার লাখ কর্মীর বিতর্কিত কোনো লোকের কোনো প্রয়োজন নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘শীতের অতিথি পাখিরা সুসময়ে আসবে, দুঃসময়ে আর থাকবে না। সেই মৌসুমী অতিথিদের আমাদের দরকার নেই।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‌‘সরকারের সঙ্গে দলকে গুলিয়ে ফেলা যাবে না। দল যদি শক্তিশালী না হয় সরকার কোনোদিনও শক্তিশালী হবে না। শক্তিশালী সরকারের জন্য শেখ হাসিনার শক্তিশালী আওয়ামী লীগ সংগঠন অপরিহার্য। তাই আমাদের দলকে কলহ, কোন্দলমুক্ত করতে হবে।’

অপরাধীরা নজরদারিতে রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আজকে যারা মাদক ব্যবসা করে, যারা লুটপাট করে, যারা জমি দখল করে, টেন্ডারবাজি করে, চাঁদাবাজি করে তাদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়ে গেছে। অ্যাকশন শুধু ঢাকায় নয়, সারা বাংলায় চলবে। কেউ যদি মনে করেন অভিযান স্থগিত হয়ে গেছে, তাদের ধারণা ভুল। দলের প্রতিটি পর্যায়ে দূষিত রক্ত বের করে বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করা হবে।’

এ সময় বাংলাদেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে হলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বের বিকল্প নেই বলেও জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ও জনগণকে বাঁচাতে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে।’

উল্লেখ্য, রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন প্রাঙ্গণে আজ সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হয়েছে আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশন। এতে সভাপতিত্ব করছেন শেখ হাসিনা। অধিবেশনে গত তিন বছরের সাংগঠনিক প্রতিবেদন পেশ করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, ‘এরই মধ্যে দেড়শো উপজেলা এবং ২৯টি জেলার মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সম্মেলন হয়েছে। বাকিগুলো জাতীয় সম্মেলনের পর হবে।’

বাংলাদেশ বুলেটিন/এমআর