এবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক : গত রোববার (২২ ডিসেম্বর) উইজডেনের দশক সেরা একাদশে স্থান পেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। এবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দশকসেরা ওয়ানডে একাদশেও জায়গা করে নিলেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এই দলটির নেতৃত্বে রাখা হয়েছে ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে একাদশে সাকিব ছাড়াও আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি, রোহিত শর্মা, হাশিম আমলা, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্সের তারকা ক্রিকেটার। দলের অধিনায়ক নির্বাচিত হয়েছেন ভারতকে ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জেতানো ধোনি। দলের উইকেটরক্ষকের দায়িত্বও তার কাঁধেই রাখা হয়েছে।

এর আগে উইজডেন ক্রিকেট সাময়িকী গত এক দশকের (১০ বছর) ওয়ানডে সেরা একাদশ ঘোষণা করেছে। ক্রিকেটের বাইবেল খ্যাত এই উইজডেনের প্রকাশিত একাদশটিতে নাম আছে সাকিব আল হাসানের। উইজডেনের সব ক্রিকেট লেখক ও প্রতিনিধিদের রায়ে এবং গত ১০ বছরের পারফরম্যান্সের বিচারে বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার সাকিবকে ওয়ানডের দশক সেরা ক্রিকেটারদের একাদশে রাখা হয়।

গত এক দশকের ওয়ানডে ক্রিকেটে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক সাকিব। শীর্ষ পর্যায়ের প্রকৃত অলরাউন্ডার বলা হয় তাকে। ব্যাটে তেমন ঝড় তুলতে না পারলেও ধারাবাহিকতার অনন্য উদাহরণ তিনি। আর বল হাতেও তার কার্যকারিতা যেকোনো পিচেই সমান। এমন অসাধারণ অলরাউন্ডার এ যুগে দ্বিতীয়টি নেই।

গত ১০ বছরে সাকিব খেলেছেন ১৩১ ওয়ানডে। যেখানে ব্যাট হাতে করেছেন ৪২৭৬ রান। ব্যাটিং গড় ৩৮.৮৭ আর ইনিংস সর্বোচ্চ অপরাজিত ১২৪ রান। বল হাতে গত এক দশকে সাকিব নিয়েছেন ১৭৭ উইকেট। যেখানে সাকিবের বোলিং গড় ৩০.১৫ আর বেস্ট বোলিং ফিগার ২৯ রানে ৫ উইকেট।

সবমিলিয়ে সাকিব ওয়ানডে খেলেছেন ২০৬টি। যেখানে ব্যাট হাতে করেছেন ৬৩২৩ রান, ব্যাটিং গড় ৩৭.৮৬। ৯টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি তার নামের পাশে আছে ৪৭টি ফিফটি। ইনিংস সর্বোচ্চ অপরাজিত ১৩৪ রান। আর বল হাতে ওয়ানডে ক্যারিয়ারে নিয়েছেন ২৬০ উইকেট।চার উইকেট নিয়েছেন আটবার আর পাঁচ উইকেট নিয়েছেন দুইবার।

এ বছর ওয়ানডে বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফর্ম করা বাংলাদেশের ক্রিকেটের বড় বিজ্ঞাপন সাকিব কদিন আগে নিষিদ্ধ হয়েছেন। তার আগে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পর সাকিব জায়গা করে নেন ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি ঘোষিত বিশ্বকাপের সেরা একাদশে। সেমি ফাইনালে না খেললেও সাকিবকে এই একাদশের বাইরে রাখা যায়নি। তাহলে হয়তো পূর্ণতাই পেতো না বিশ্বসেরা একাদশ। ব্যাট হাতে আট ইনিংসের সাতটিতেই ফিফটি প্লাস ইনিংস খেলেছেন।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে একাদশ: মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক এবং উইকেটরক্ষক), রোহিত শর্মা, হাশিম আমলা, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, সাকিব আল হাসান, জস বাটলার, রশিদ খান, লাসিথ মালিঙ্গা, মিচেল স্টার্ক, ট্রেন্ট বোল্ট।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এমআর