চীনে ভয়াবহ করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০৬

অনলাইন ডেস্ক : চীনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে। বিবিসির সবশেষ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এখন পর্যন্ত চীনে এই ভাইরাসের কারণে ১০৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সেইসঙ্গে বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যাও। চীন কর্তৃপক্ষ চার হাজার ৫১৫ জন আক্রান্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেছে। একদিনের ব্যবধানে এই সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। সোমবার (২৭ জানুয়ারি) আক্রান্তের সংখ্যা পাওয়া গিয়েছিল দুই হাজার ৮৩৫।

দেশটির বেশকিছু শহরে মুখে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। একইসাথে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাও জোরদার করা হয়েছে।

চীনের উহান শহর থেকে এই ভাইরাসের উৎপত্তি হলেও এখন তা ছড়িয়েছে গোটা দেশে। এমনকি দেশটির রাজধানী বেইজিংয়েও সোমবার একজন আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যুর কথা স্বীকার করেছে সরকার।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তরা শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমনে ভুগছেন। এর কোনো সুনির্দিষ্ট চিকিৎসা বা ভ্যাকসিন এখনও বাজারে নেই। যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে অধিকাংশই বয়সে প্রবীন আগে থেকেই শ্বাসযন্ত্রের সমস্যায় ভুগছিলেন।

ডিসেম্বরের ৩১ তারিখে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে এই ভাইরাস প্রথম শনাক্ত করা হয়েছিল। তারপর থেকেই ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে উহানসহ চীনের অন্তত দশটি শহরের সাথে সমগ্র দেশকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। তারপরেও ঠেকানো যাচ্ছে না সংক্রমণ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ চীনের সঙ্গে যোগাযোগ আপাতত বন্ধ করে দিচ্ছে এবং কেউ চীন থেকে কোনো দেশে প্রবেশ করলে বিশেষভাবে তার শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে।

চীনের বাইরে থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, তাইওয়ান, হংকং, ম্যাকাও, সিঙ্গাপুর, ভারত, নেপালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সন্ধান মিলেছে। বাংলাদেশেও এক চীনা নাগরিক অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে বিশেষভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এমআর