নুরের ওপর হামলায় ব্যথিত তোফায়েল আহমেদ

অনলাইন ডেস্ক : ডাকসুর সাবেক ভিপি এবং আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর হামলায় তিনি দুঃখিত, বিব্রত এবং লজ্জিত। তিনি বলেন, ‘দুর্ভাগ্য এ ধরনের ঘটনা ঘটে। তবে, যারা ডাকসুর ভিপি হন, তাদেরও সতর্কতার সঙ্গে চলা উচিত, কথা বলা উচিত। এমন কিছু করা উচিত নয়, যেটাতে প্রতিপক্ষের মনে আঘাত লাগতে পারে। ডাকসু মানে সবার।’

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর বনানী কবরস্থানে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাকের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘ছাত্ররাজনীতি সম্পর্কের কোনও বক্তব্য দিতে গেলে আমি বিব্রত বোধ করি। আমাদের দিনেও মতের ভিন্নতা ছিল, যেমন ১৯৬৯ সালে আমরা সর্বদলীয় ছাত্রসমাজ গঠন করেছিলাম। আমাকে ডাকসুর ভিপি হিসেবে আহ্বায়ক করা হয়েছিল। ছাত্রলীগের মতিয়া গ্রুপ, ছাত্রলীগের মেনন গ্রুপ, জাতীয় ছাত্র ফেডারেশনের একটা অংশ— সবার এক আদর্শ ছিল না। কিন্তু আমরা ১১ দফা কর্মসূচি প্রণয়ন করে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন করেছি। তখন ছাত্রসমাজ ঐক্যবদ্ধ ছিল।’

তিনি বলেন, ‘যিনি ডাকসুর ভিপি আছেন এবং কমিটিতে যারা আছেন, তাদের সবার ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করা উচিত। অতিমাত্রায় রাজনীতি নিয়ে আসলে এ ধরনের হানাহানি হবেই। সেজন্য সবার সতর্ক থাকা উচিত বলে আমি মনে করি।’

ঢাকা সিটি করপোরেশনের আসন্ন নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের আগামী বৈঠকে চূড়ান্ত করা হবে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এমআর