মারমুখী অবস্থায় থাকা আর মারামারিতে অংশ নেয়া এক নয়: ডিএমপি কমিশনার

অনলাইন ডেস্ক:  মারমুখী অবস্থায় থাকা আর মারামারিতে অংশ নেয়া এক নয় বলে মন্তব্য করেছেন ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম।

ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর ও তার অনুসারীদের ওপর হামলা নিয়ে সাংবাদিকদের করা এক প্রশ্নের জবাবে এমন মন্তব্য করেন ডিএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম।

বুধবার সকাল ১১টায় রাজধানীর বনানীতে হোলি স্পিরিট চার্চ পরিদর্শন করেন ডিএমপি কমিশনার। পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

এ সময় শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর হামলার সময় সেখানে অনেককেই মারমুখী অবস্থায় দেখা যায়। তাদের বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা, ডিএমপি কমিশনারের কাছে জানতে চাওয়া হয়। জবাবে তিনি বলেন, মারমুখী অবস্থায় থাকা আর মারামারিতে অংশ নেয়া এক কথা নয়। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। তদন্ত হচ্ছে, আসামিদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যপ্রমাণ পেলে অবশ্যই গ্রেফতার করা হবে।তিনি বলেন, হামলার ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা চলছে।’

সিসিটিভির ফুটেজ খোঁজা হচ্ছে জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যপ্রমাণ পেলে গ্রেপ্তার করা হবে। নুরের ওপর হামলা ও ডাকসু ভবন ভাঙচুরের ঘটনায় গায়েব সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।’

এ সময় বড়দিন উপলক্ষে রাজধানীজুড়ে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। এছাড়া দিনটি ঘিরে কোনো ধরনের নাশকতার সম্ভাবনা নেই বলেও জানান ডিএমপি কমিশনার।

গত রবিবার দুপুরে ডাকসু ভবনে প্রবেশ করে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর ও তার অনুসারীরা প্রায় ৩০জনকে পিটিয়ে আহত করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামে একটি সংগঠন। এই ঘটনায় মঙ্গলবার শাহবাগ থানা পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করে। মামলায় সংগঠনটির তিনজন নেতাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। একই দিন ভিপি নুর বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় একটি মামলা করেন।

এ সময় বড়দিন উপলক্ষে রাজধানীজুড়ে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও জানান ডিএমপি কমিশনার।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এসকে