রাজনৈতিক অঙ্গীকার থাকলেই দেশের উন্নয়ন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক:  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের পেছনে কোনো ম্যাজিক নেই। রাজনৈতিক অঙ্গীকার ও কমিটমেন্ট অনুযায়ী কাজ করার ফলেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। একটি দেশকে গড়ে তুলতে রাজনৈতিক অঙ্গীকারের সঙ্গে পরিকল্পনা থাকা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, রাজনৈতিক অঙ্গীকার ছাড়া কোনো দেশ উন্নতি করতে পারে না। এর পাশাপাশি পরিকল্পনাও প্রয়োজন।

বুধবার সকাল ১১টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ উন্নয়ন ফোরামের সম্মেলন উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

দুই বছর পর ঢাকায় বসেছে এই সম্মেলন। সম্মেলনের আয়োজন করেছে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি)।দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

শেখ হাসিনা বলেন, রাজনৈতিক অঙ্গীকার ছাড়া কোনো দেশ বা জাতি উন্নতি করতে পারে না। সেটা বাংলাদেশের জন্য একেবারেই সত্য। জাতির পিতা দেশকে দারিদ্র্যমুক্ত ও উন্নত করার লক্ষ্যে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। ১৯৭৩ থেকে ৭৮ পর্যন্ত পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা নিয়েছিলেন তিনি। আমরা ২১ বছর পর সরকার গঠন করে পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনাও গ্রহণ করি, পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনাও গ্রহণ করি। ষষ্ঠ শেষ করে, সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা প্রণয়ন করে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি। টেকসই উন্নয়নের ক্ষেত্রে কোন জায়গাগুলো গুরুত্বপূর্ণ তা চিহ্নিত করেই আমরা পরিকল্পনামতো এগিয়ে যাচ্ছি।’

বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, ‘জাতির পিতা যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিলেন, সেটা বাস্তবায়ন করাই আমাদের লক্ষ্য। তা করতে পারলেই দেশ এগিয়ে যাবে। আমরা যদি এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে পারি, তাহলে ২০২৪ সালে আমরা উন্নয়নশীন দেশের স্বীকৃতি পাবো এবং ২০৪১ সালের মধ্যে বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রের কাতারে অবস্থান হবে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে।’ বাংলাদেশের উন্নয়নের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে কঠিন শর্ত না দিয়ে উন্নয়ন সহযোগীদের পাশে থাকার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান।

অনুষ্ঠানে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রস্তুতি নিতে কারিগরি শিক্ষায় উৎসাহিত করার তাগিদ দেন বঙ্গবন্ধুকন্যা। এছাড়া বসতবাড়ি ও কৃষিজমি নষ্ট করে যেখানে সেখানে শিল্প কারখানা না করারও নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এস কে