শাহজালালে ৬৪ কেজি সোনা জব্দ

অনলাইন ডেস্ক: শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পরিত্যক্ত অবস্থায় ৬৪ কেজি সোনা জব্দ করেছে কাস্টমস কর্মকর্তারা। শনিবার রাত সোয়া দশটার দিকে সোনাগুলো জব্দ করা হয়।ঢাকা কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার রাতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বিমানবন্দরে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিমানবন্দরের গুদাম থেকে ৩২ কোটি টাকা দামের ৬৪ কেজি সোনার বার জব্দ করেছে ঢাকা কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিম। এসব সোনা সিঙ্গাপুর থেকে আসা বাংলাদেশ বিমানের বিজি-০৮৫ ফ্লাইটে শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) ও শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) বিমানবন্দরে এসেছে। সোনার বারগুলো টেম্পার গ্লাসের নমুনা ও বিমানের যন্ত্রাংশ হিসেবে ফিউচার ট্রেড ইন্টারন্যাল ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নামে আমদানি করা হয়েছিল।’

জানা যায়, আমদানি কার্গো ভিলেজ এলাকায় সোনাগুলো কাচের ফ্রেমে বিশেষ কায়দায় লুকানো ছিল। গোপন খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে সেগুলো উদ্ধার করে কাস্টমস।

সিঙ্গাপুর থেকে আসা বিজি ০৮৫ নম্বর ফ্লাইটে করে সোনার চালানটি ঢাকায় আসে। তল্লাশি করে ৬৪০টি সোনার বার পাওয়া গেছে। প্রতিটি বারের ওজন ১০০ গ্রামের মতো। এর সঙ্গে জড়িত কাউকে এখনো পর্যন্ত আটক করা যায়নি।

ঢাকা কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিমের সহকারী কমিশনার মো. সোলাইমান হোসেন বলেন, আমদানি কার্গোর ভেতর থেকে চারটি কাঠের ক্যারেটের কাঠামোর ভেতর অভিনব উপায়ে লুকানো ৬৪০ পিস সোনার বার পাওয়া যায়। এগুলোর বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এর আমদানিকারক ও এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কে বা কারা সোনাগুলো এনেছে এবং কোথায় যাওয়ার কথা ছিল সে বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এসকে