সিটি নির্বাচনে গ্রহণযোগ্য প্রার্থী বেছে নিয়েছি: কাদের

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে গ্রহণযোগ্য ও বিজয়ী হতে পারে এমন প্রার্থী দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ সোমবার দুপুরে বনানীর সেতু ভবনের সভাকক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগ থেকে মেয়র পদে মনোনয়ন পেয়েছেন শেখ ফজলে নূর তাপস। এ কারণে বাদ পড়েছেন বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন, যিনি গতবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। এ ছাড়া ঢাকা উত্তরে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সিটি নির্বাচন নিয়ে দলের প্রার্থীর বিষয়েও ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা গ্রহণযোগ্য ও বিজয়ী হতে পারবে এমন প্রার্থী দিয়েছি। সে ক্ষেত্রে আগের মেয়র খারাপ কি ভালো সেসব প্রসঙ্গে আমি যেতে চাই না। সিটি করপোরেশন নির্বাচনের জন্য আমরা গ্রহণযোগ্য প্রার্থী বেছে নিয়েছি বিভিন্ন জরিপের মাধ্যমে।’

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গত চার দিনের মধ্যে তিন দিন ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাকে বিক্ষিপ্ত ও বিচ্ছিন্ন ঘটনা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘এটি একটি বিক্ষিপ্ত-বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এখানে পলিটিক্সও কাজ করে।’

এ ছাড়া বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি অফিসের সামনে কারা ককটেল মেরেছে এটি তারাই ভালো জানে। এমন হতে পারে বিএনপি রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য নিজেরাই ককটেল মেরেছে।’

‘এখন আমি আমার অফিসের সামনে বোমা মেরে যদি বলি এটি বিরোধী দল করেছে। সেটি বলা তো খুব সহজ বিষয়‘, বলেন ওবায়দুল কাদের।

পদ্মা সেতু প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘এখন থেকে প্রতি মাসে তিনটি করে স্প্যান বসলে আগামী জুলাইয়ের মধ্যে স্প্যান বসানোর কাজ শেষ হয়ে যাবে। তবে মূল ব্রিজ চালু করতে ২০২১ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। সে বছরের জুনে ব্রিজ উদ্বোধন করার লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি। তবে এর আগেও কাজ শেষ হয়ে যেতে পারে।’

বাংলাদেশ বুলেটিন/এমআর