ঢাকা, শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০ ই-পেপার

ঘুমের আগে যে কাজগুলো ভুড়ি কমাতে সাহায্য করবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক :

২০২০-০৭-১৩ ২১:০৩:৪৪ /

ওজন কমানো এমন একটি কাজ যা কেবল জীবনযাপনে পরিবর্তনের মাধ্যমেই করা সম্ভব। যতটা সম্ভব ক্যালোরি গ্রহণের পরিমাণ কমিয়ে এবং নিয়মিত অনুশীলন করে এটি করা সম্ভব। যাইহোক, বাড়তি ভুড়ি কমানোর জন্য রাতে ভালো ঘুম এবং সম্পূর্ণ বিশ্রাম অধিক গুরুত্বপূর্ণ। ঘুমের অভাব হলে তা আপনার শরীরের জন্য ভালো জিনিসগুলো বেছে নেয়ার ক্ষমতাকে প্রভাবিত করতে পারে। ফলে আপনি মিষ্টি কিংবা চর্বিজাতীয় খাবারের প্রতি আকৃষ্ট হতে পারেন। তাই ঘুমের সময়ে কিছু অভ্যাস অনুসরণ করতে পারলে দ্রুতই বাড়তি ভুড়ি কমবে-

ঘর ঠান্ডা রাখা
আমাদের শরীরে অবিচ্ছিন্নভাবে কিছু ভালো ফ্যাট প্রয়োজন, এর মধ্যে কিছু ফ্যাট ওজন কমাতে সাহায্য করে। ব্রাউন ফ্যাট, যা ব্রাউন অ্যাডিপোজ টিস্যু হিসাবে পরিচিত, তা আমাদের শরীরকে আশেপাশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে ব্যবহৃত হয়। এই ফ্যাট ঠান্ডা তাপমাত্রায় সক্রিয় হয় এবং শরীরের জন্য অভ্যন্তরীণ গরম জ্যাকেট হিসাবে কাজ করে। এটি আরও ব্রাউন ফ্যাট কোষকে সক্রিয় করে এবং আমাদেরকে ফ্যাট পোড়াতে সহায়তা করে। অতএব, ঘুমের সময় ঘর ঠান্ডা থাকলে তা অতিরিক্ত ওজন কমাতে সহায়তা করতে পারে। শরীরে ব্রাউন ফ্যাটের পরিমাণ যত বেশি, সাদা ফ্যাটের পরিমাণ তত কম হবে।

ঘর অন্ধকার রাখা
অতিরিক্ত ওজন এবং ভুড়ি কমাতে চাইলে অবশ্যই ঘর পুরো অন্ধকার করে ঘুমাতে হবে। বাতি বন্ধ করে দিলেও ঘর পুরোপুরি অন্ধকার নাও হতে পারে। প্রয়োজনে জানালার পর্দাগুলো পুরোপুরি টেনে দিন। পুরোপুরি অন্ধকার ঘর শরীরকে মেলাটোনিন উৎপাদন করতে সহায়তা করে, যা একটি ঘুম-বিস্তারকারী হরমোন। এমনকি সামান্য হালকা আলোও শরীরে মেলাটোনিন উৎপাদনে বাধা দিতে পারে। মেলাটোনিন আপনার বিপাককে প্রভাবিত করে, বিশেষ করে ব্রাউন ফ্যাটকে সাদা ফ্যাটে রূপান্তর করতে সহায়তা করে।

ঘুমাতে যাওয়ার আগে গ্রিন টি পান করা
যদিও গ্রিন টিতে ক্যাফেইন রয়েছে, তবু এটি ঘুম-বান্ধব হতে পারে। গ্রিন টিতে বেশ কয়েকটি যৌগ রয়েছে যা শরীরের ফ্যাট পোড়াতে সহায়তা করতে পারে। ইসিজিসির মতো অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলো বিপাকক্ষমতা উন্নত করতে সহায়তা করতে পারে। ক্যাফেইনও আমাদের শরীরের ব্রাউন ফ্যাটকে উদ্দীপিত করতে সহায়তা করে। এককাপ গ্রিন টিতে এককাপ কফির তিন ভাগের একভাগ ক্যাফেইন থাকে।

ফোন বন্ধ রাখা
ঘুমের সময় সঙ্গে কোনো গ্যাজেট রাখার অর্থই হলো, এটি আপনার স্বাভাবিক ঘুমে ব্যাঘ্যাত ঘটাবে। ঘুম কম হলে তখন আমাদের শরীর বাড়তি খাবারের মাধ্যমে সেই ঘাটতি পূরণের চেষ্টা করে। এর ফলে সারাদিন ক্লান্তিবোধ হতে পারে, শারীরিকভাবে কম সক্রিয় থাকতে হয়। এছাড়াও, ফোন থেকে নির্গত নীল আলো শরীরের মেলাটোনিন উৎপাদনকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে। আপনি যদি অতিরিক্ত ওজন ও ভুড়ি কমাতে চান তবে ঘুমের সময় তখন আপনার ফোন দূরে রাখাই ভালো।

তাড়াতাড়ি ঘুমানো
আমরা যখন গভীর ঘুমে থাকি তখন আমাদের শরীর আরও ক্যালরি পোড়ায়। যতক্ষণ নিঃশব্দে ঘুম হবে, তত বেশি ক্যালোরি বার্ন হবে। তাই চেষ্টা করুন দ্রুত ঘুমিয়ে যাওয়ার।

বাবু/আমেনা

এ জাতীয় আরো খবর

গর্ভাবস্থায় পা ও গোড়ালী  ফুলে যাওয়ার কারণ ও  করণীয়

গর্ভাবস্থায় পা ও গোড়ালী ফুলে যাওয়ার কারণ ও করণীয়

বিশেষ এই চা পান করলেই চুল পড়া বন্ধ

বিশেষ এই চা পান করলেই চুল পড়া বন্ধ

৫ খাবার বারবার গরম করে খাওয়া ঠিক না

৫ খাবার বারবার গরম করে খাওয়া ঠিক না

সহজ উপায়ে প্রেসার কুকারে রসগোল্লা তৈরি

সহজ উপায়ে প্রেসার কুকারে রসগোল্লা তৈরি

যে ধরনের খাবার শীতে খাবেন

যে ধরনের খাবার শীতে খাবেন

সহজে মাইগ্রেন থেকে মুক্তির উপায়

সহজে মাইগ্রেন থেকে মুক্তির উপায়