এক চিমটে হলুদেই ত্বক হবে ঝলমলে

অনলাইন ডেস্ক:  শত ব্যস্ততার মাঝে বাড়িতে রূপচর্চার জন্য সময় বার করা কঠিন। হলেও যেটুকু হয়, তা নাম মাত্রই। উপায় না পেয়ে তাই পার্লারেই ভিড় জমাতে হয় এক প্রকার বাধ্য হয়েই। খরচ তো হয়ই,তার উপর নানা রকম রাসায়নিকের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ত্বকের ক্ষতিও হয়। অথচ উপায় জানলে বাড়িতেই সামান্য কিছু ঘরোয়া উপাদান দিয়ে বানিয়ে ফেলতে পারেন এমন কিছু ফেসপ্যাক, যা ত্বককে সতেজ করে তোলার পাশাপাশি ঔজ্জ্বল্যও আনে।

ত্বকের পরিচর্যায় হলুদ আদি কাল থেকেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ত্বককে উজ্জ্বল করতে, র‌্যাশ-ব্রণ সমস্যা দূর করতে হলুদ সব সময়ই গৃহস্থের বড় ভরসা। নমনীয় ও মসৃণ ত্বক পেতে ভরসা রাখতে পারেন হলুদের ভরসাতেই। কেমন করে? রইল তেমন তিনটি উপায়।

হলুদ, বেসন এবং গোলাপ জলের প্যাক: বেসন ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নিয়ে ত্বককে ব্যাকটিরিয়ামুক্ত রাখে। ফলে ব্রণ প্রবণতাও হ্রাস পায়। ১/৪ চামচ হলুদ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ বেসন, আর খানিকটা গোলাপ জল একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। প্যাকটি ব্যবহারের আগে ভাল করে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। তার পর এই পেস্টটি মুখে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। ফেসপ্যাকটি শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দু’বার এই ফেসপ্যাক ব্যবহার করলে ত্বক উজ্জ্বল ও সতেজ হবে।

হলুদ,মধু এবং দুধের প্যাক: ১/৪ চামচ হলুদ গুঁড়ো, এক চামচ মধু আর দু’চামচ কাঁচা দুধ মিশিয়ে নিলেই এই ফেসপ্যাক তৈরি। প্রথমে ক্লিনজার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে প্যাকটি আলতো হাতে সারা মুখে লাগিয়ে দশ থেকে পনেরো মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মধু ত্বকে পানির ভারসাম্য রক্ষা করে। এর সঙ্গে হলুদের অ্যান্টিসেপটিক এবং অ্যান্টিব্যাকটিরিয়াল উপাদান ত্বকের ব্রণ হওয়ার প্রবণতা হ্রাস করে। দুধে প্রচুর পরিমাণ মিনারেল এবং ভিটামিন থাকায় তা ত্বকের মৃত কোষকে দূর করে, ত্বককে কোমল করে তোলে। এই ফেসপ্যাক ত্বকের বলিরেখা দূর করতে বিশেষ কার্যকর।

হলুদ, লেবুর রস এবং মধু: লেবুর রস ত্বকের কালো দাগ, ব্রণর দাগ দূর করতে সাহায্য করে। ত্বকের রোমকূপ সংকুচিত করে থাকে। মধু আবার প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার। শুধু তাই নয়, মধু ত্বকে পানির ভারসাম্য বজায় রেখে ব্রণ হওয়ার প্রবণতাও রোধ করে। ১/৪ চা চামচ হলুদের গুঁড়ো, ১ চা চামচ লেবুর রস এবং ১ টেবিল চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি সপ্তাহে এক বার ব্যবহার করুন। নিয়মিত ব্যবহারে এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এস কে