করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পাঁচ পরামর্শ

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। গত ডিসেম্বর মাসে চীনের উহান প্রদেশে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১০৫ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতোমধ্যে ৩,৮৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা প্রতিরোধে পাঁচটি পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। জেনে নেই সে পরামর্শগুলো।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে যা করণীয়

১. ভালোভাবে সাবান পানি দিয়ে হাত ধুতে হবে।

২. হাত না ধুয়ে চোখ, মুখ ও নাক স্পর্শ না করা।

৩. হাঁচি-কাশি দেওয়ার সময় মুখ ঢেকে রাখা।

৪. অসুস্থ পশু বা পাখির সংস্পর্শে না আসা।

৫. মাছ, মাংস ভালোভাবে রান্না করে খাওয়া।

করোনাভাইরাস ছড়ায় যেভাবে

১. আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি–কাশির মাধ্যমে।

২. আক্রান্ত ব্যক্তিকে স্পর্শ করলে ছড়ায়।

৩. পশু, পাখি বা গবাদিপশুর মাধ্যমে ছড়ায়।

অধিদপ্তর জরুরি প্রয়োজন ছাড়া চীন ভ্রমণ করা থেকে বিরত থাকতে বলেছে। এমনকি প্রয়োজন ছাড়া এই সময়ে বাংলাদেশ ভ্রমণে নিরুৎসাহিত করতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ডিসেম্বরের শেষের দিকে চীনের উহানে প্রথম নিউমোনিয়াসদৃশ এই ভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল। এরপর একে একে ১০২টি দেশ ও অঞ্চলে করোনাভাইরাসের সংক্রমিত রোগী সন্ধান মিলেছে। করোনাভাইরাসে রবিবার পর্যন্ত বিশ্বে মারা গেছেন ৩৮৩০ জন। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১০ হাজারের মতো। এর মধ্যে চীনের মূল ভূখণ্ডেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮১ হাজারের মতো।

চীনের পর করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি দক্ষিণ কোরিয়া ও ইতালিতে। কোরিয়ায় এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৭ হাজারের মতো। ইতালিতে মোট মৃতের সংখ্যা ৩৬৬ জন।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এস কে