সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন করোনা আক্রান্ত একজন

অনলাইন ডেস্ক:  দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজনের মধ্যে দুজন পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এদের মধ্যে একজন সুস্থ হয়ে ইতোমধ্যে বাড়ি ফিরেছেন। এই তথ্য জানিয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।শুক্রবার সকালে আইইডিসিআরের অডিটোরিয়ামে করোনাভাইরাসের সবশেষ পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তৃতীয় রোগী এখনও ভাইরাসমুক্ত হননি, তার চিকিৎসা চলছে।

‘আক্রান্ত তিনজনের দুজন করোনামুক্ত হয়েছেন, তাদের একজন হাসপাতাল ছুটি নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন। আরেকজনের পরিবারের সদস্যরা হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকায় তিনি সুস্থ হলেও এখনও হাসপাতালে রয়েছেন’-যোগ করেন সেব্রিনা।

ডা. ফ্লোরা বলেন, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নতুন কেউ আর শনাক্ত হয়নি। আমরা প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। এটি নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

করোনাভাইরাসে বয়োবৃদ্ধদের মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি ও ইরানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভাইরাসটির সংক্রমণের পরিসংখ্যান ও তথ্য সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন আইইডিসিআর’র পরিচালক।

যারা বিদেশ থেকে দেশে ফিরছেন তাদের সেলফ কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।মীরজাদী সেব্রিনা জানান, আইইডিসিআরর হটলাইনে ইতোমধ্যে মোট ৪৩৪৯টি কল এসেছে। এর মধ্যে করোনা সংক্রান্ত কল ৪২১২টি। এছাড়া ১৬ জন সরাসরি এসেছেন।

‘আমরা অনুরোধ করব, যাদের শরীরে করোনার লক্ষণ আছে, আক্রান্ত দেশ থেকে এসেছেন তারা যেন আইইডিসিআরে সরাসরি চলে না আসেন। তারা হটলাইনে কল করুন। কারণ, আপনার শরীরে করোনাভাইরাস থাকলে অন্যরা সংক্রমিত হতে পারে। আমরা বাড়ি গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করব। ইমেইল ও ফোনে রিপোর্ট জানিয়ে দেব’-যোগ করেন সেব্রিনা।

বাংলাদেশ বুলেটিন/এস কে