ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

ইসরাইলে অস্ত্র সরবরাহে সহযোগিতা করবে না ইতালির বন্দরকর্মীরা

বুলেটিন নিউজ ডেস্ক :

২০২১-০৫-১৭ ১২:৫১:০৪ /

ফিলিস্তিনের অধিকৃত গাজা উপত্যকা ও পশ্চিম তীরে অব্যাহতভাবে ভয়াবহ ও প্রাণঘাতী বিমান হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরাইল। ফিলিস্তিনিদের ওপর চলছে দখলদার বাহিনীর বর্বর ও পাশবিক আগ্রাসন।

শরণার্থীশিবির, মিডিয়া হাউস, সাধারণ বাড়িঘর কিছুই রেহাই পাচ্ছে না। ইসরাইলের এই আগ্রাসনের বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।

এ প্রতিবাদে সামিল হয়েছে ইতালির বন্দর শ্রমিকরা। ইসরাইলের কাছে অস্ত্রের চালান সরবরাহে সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা।

ইতালির পত্রিকা কন্ট্রোপিয়ানো জানিয়েছে, সম্প্রতি অস্ত্র ও গোলাবারুদ ভর্তি কয়েকটি কন্টেইনার জাহাজে তুলে দেওয়ার ইতালির লিভোরনো শহরের বন্দর শ্রমিকদের বখশিস দেয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ সময় শ্রমিকরা জানাতে পারেন যে, এসব কন্টেইনারে অস্ত্র ও গোলাবারুদ রয়েছে। এসব ইসরাইলের বন্দরনগরী আশদোদে যাবে। এসব দিয়ে নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের ওপর বর্বর হামলা চালানো হবে। বিষয়টি জানার পর পরই শ্রমিকরা সাফ জানিয়ে দেয়,  যত অর্থই দেওয়া হোক না কেন এই অস্ত্র তারা জাহাজে তুলবে না তারা।

পত্রিকাটি আরো লিখেছে, এসব অস্ত্র ও বিস্ফোরক নিরপরাধ ফিলিস্তিনিকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত হবে জেনে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন এসব শ্রমিক। তাই নতুন করে ইসরাইলে আর অস্ত্র পাঠানোর বিরোধিতার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

প্রসঙ্গত, টানা অষ্টম দিনের মতো ফিলিস্তিনে বর্বর হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরাইল। ৫৫ শিশু, ৩৪ নারীসহ দুই শতাধিক বেসামরিক ফিলিস্তিনি নাগরিককে বোমা মেরে হত্যা করেছে দখলদার বাহিনী। তথ্যসূত্র: দ্য নিউ আরব।

বাবু/আমেনা

এ জাতীয় আরো খবর

গাজায় দ্বিতীয় দফা বিমান হামলা ইসরায়েলের

গাজায় দ্বিতীয় দফা বিমান হামলা ইসরায়েলের

ভারতের পঞ্চম বৃহত্তম রফতানি বাজার বাংলাদেশ

ভারতের পঞ্চম বৃহত্তম রফতানি বাজার বাংলাদেশ

বিশ্ব শান্তি সূচকে ৭ ধাপ উন্নতি বাংলাদেশের

বিশ্ব শান্তি সূচকে ৭ ধাপ উন্নতি বাংলাদেশের

বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম হীরা পাওয়া গেল বতসোয়ানায়

বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম হীরা পাওয়া গেল বতসোয়ানায়

নতুন পাসপোর্টে জেরুজালেমকে ‘ফিলিস্তিনি অঞ্চল’ লিখল যুক্তরাজ্য

নতুন পাসপোর্টে জেরুজালেমকে ‘ফিলিস্তিনি অঞ্চল’ লিখল যুক্তরাজ্য

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২৩৩০ জনের মৃত্যু

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২৩৩০ জনের মৃত্যু